"আদালত চত্বরের কবিতা" -শহিদ রাসেল BDLAW ASK

"আদালত চত্বরের কবিতা" -শহিদ রাসেল


আদালত চত্বরের কবিতা
শহিদ রাসেল

আজ কোর্ট প্রাঙ্গনে- লোকারণ্য বারান্দায় 
আমার কৌতূহলী পথচারিতায় 
শুনলুম-
এক সুন্দরী যুবতীর উচ্চঃস্বর:
"আজকেও কতগুলা টাকা নিল; 
উকিলকে  আগে দিয়েছিলাম ২০ হাজার
আজ আবার ১০ হাজার" !

টানা নেত্রকমল, কম্পিত অধরা, মুখচন্দ্রিকা 
মায়া মধুর দৃষ্টি,সুঠাম গাত্র, কৃশ খোলা বোরকা আর হলুদ কামিজে 
বসে আছে কোর্ট বারান্দার
অর্ধ উঁচু সিঁড়িতে পা ছড়িয়ে।

সে কী নিস্পাপ, গাল দুটো ফুলো আর
রূপ ঝরছে অবিরত;
তার তীক্ষ্ণ দৃষ্টিতে
হৃদয় নিংড়ানো আবেগ উথলে উঠে
বুকের ভিতর মোচড় খেল নিমিষে।

ভাবলুম-
কোন উকিলের সাথে চলছে তার লেনাদেনা 
ফি নিয়ে তর্কাতর্কি; অথবা
নিয়মিত অযাচিত কথা বার্তা- 
রাত বিরাতে ফোনকল।
কাল ক্ষেপন, মিথ্যা প্রতিশ্রুতি
চলছে কত রকমের দেনদরবার।

জেলবন্দি স্বামীর সুন্দর স্ত্রীর ঠিকানা আজ
কোর্ট কাচারী, মধ্যস্বত্ব ভোগী মুন্সী, পুলিশ
আর যত্রতত্র চুটকা দালাল।
চার দেয়ালের বন্দী করিডোরে তার রূপের সস্তা দর আর শিকারী চোখের আহার্য।

বিচারহীনতার আর্তচিৎকার আর 
চর দালালের আস্ফালনে সুন্দরী নারী জিম্মী কারো ফাইল নথির লাল ফিতায়
ঘূর্ণায়মান রমণীর জীবন চক্র।

(জানুয়ারি ৩, ২০১৯ এ লেখা আমার একটি কবিতা)


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ